add

ঢাকা, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

সিরিজ বাঁচাতে আজ মাঠে নামছে টাইগ্রেসরা

স্পোর্টস ডেস্ক    

 প্রকাশিত: এপ্রিল ০২, ২০২৪, ১১:২৭ দুপুর  

ছবি: ইন্টারনেট

ওয়ানডে সিরিজ হারের হতাশা ভুলে টি-টোয়েন্টিতে ভালো করার প্রত্যাশা নিয়েও হারের বৃত্তে বাংলাদেশ। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়ক নিগার সুলতানার জ্যোতির অর্ধশতক ম্লান করে ১০ উইকেটের জয় তুলে নেয় অজি মেয়েরা। এমনি অবস্থায় আজ বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে সিরিজ বাঁচাতে মাঠে নামছে টাইগ্রেসরা। মিরপুর শেরেবাংলায় দুপুর ১২টায় শুরু হবে ম্যাচটি। 

মাঠে নামার আগে ম্যাচের আগে ইতিহাস অ্যালিশা হিলিদের পক্ষে। দুই দলেত টি-টোয়েন্টি লড়াইয়ে শতভাগ জয় অজি নন্দিনীদের। ২০২০ বিশ্বকাপে প্রথম মুখোমুখি হয় দুই দল। যাতে আধিপত্য হলুদ জার্সিধারীদের। গত পরশুর ম্যাচেও একই চিত্রনাট্য। সিরিজের প্রথম দেখায় ১০ উইকেটে জিতেছে সফরকারীরা। বাংলাদেশের অধিনায়ক ছাড়া বাকিরা ছিলেন ব্যর্থতার মিছিলে।

স্বাগতিকদের সমতায় ফিরতে প্রয়োজন ব্যাটারদের ব্যাটে রান। ওয়ানডে সিরিজেও ‘টপ অর্ডার’ ব্যাটারদের অফফর্ম ভুগিয়েছে দলকে। হতশ্রী ব্যাটিংয়ের নিদারুণ ব্যর্থতা নিয়ে হতাশার কথা বলেছিলেন ক্যাপ্টেন নিগার সুলতানা। দ্বিতীয় ম্যাচের আগে একই সুর কোচ হাসান তিলকারত্নের, ‘ব্যাটিং নিয়ে আমরা বেশ হতাশ। তবে প্রথম ম্যাচে রিকভারি (পুনর্গঠন) অনেক ভালো ছিল। সেখানে ইতিবাচক কিছু ব্যাপার আছে। বিশেষ করে জ্যোতি (নিগার) ও ফাহিমার (খাতুন) ব্যাটিংয়ে খুশি আমি। তারা একসঙ্গে যেভাবে খেলেছে। হিসাব করে কিছু ঝুঁকি নিয়েছে ঠিক মুহূর্তে।’

আসছে অক্টোবরে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ; তার আগে দলের এমন বাজে পারফরমেন্স চিন্তায় ফেলছন টাইগ্রেস কোচদেরও। বাংলাদেশের কোচের চাওয়া নিজেদের দ্রুত রিকভার করা। বিশেষ করে ব্যাটিংয়ে আরও মনোযোগ দিতে চান তিনি।

টাইগ্রেস কোচ তিলকারত্নে বলেন, সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। আমাদের কিছু ব্যাপার নিয়ে আলোচনা করতে হবে শিগগিরই। একত্র বসে দেখতে হবে, কীভাবে দ্রুত উন্নতি করা যায়। তিনি মনে করেন, অনেকটা ইতিবাচক মেয়েরা। এও মনে করেন, অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইনআপ বেশ ভালো। তাদের থেকে শেখার আছে।

বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দল: নিগার সুলতানা জ্যোতি, নাহিদা আক্তার, মুর্শিদা খাতুন, সোবহানা মোস্তারি, সুমাইয়া আক্তার, স্বর্ণা আক্তার, রিতু মনি, রাবেয়া, সুলতানা খাতুন, ফাহিমা খাতুন, মারুফা আক্তার, ফারজানা আক্তার লিসা, ফারিহা ইসলাম, শরিফা খাতুন, দিলারা আক্তার দোলা

দৈনিক সরোবর/এনএ