add

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

জেনে নিন নাবালোগের হজ্জের নিয়ম

সরোবর ডেক্স

 প্রকাশিত: মে ২১, ২০২৪, ০৬:৫৩ বিকাল  

নাবালেগ শিশুর ওপর হজ্জ ফরজ নয়। নাবালেগ যদি পিতা-মাতা বা অন্য কারো সঙ্গে হজ্জ করে তাহলে তার হজ নফল বলে গণ্য হবে। এই নফল হজ্জের সওয়াব সে নিজে তো পাবেই, সঙ্গে তার মা-বাবা ও অভিভাবকরাও লাভ করবেন।

তবে, বালেগ হওয়ার পর ওই নাবালেগের ওপর হজ্জ ফরজ হলে তাকে আবার হজ্জ করতে হবে। অন্যথায় হজের ফরজ আদায় হবে না। (রদ্দুল মুহতার: ২/৪৬৬)

নাবালেগের হজ্জের নিয়ম হলো- শিশু বুঝমান হলে হজের ইহরামসহ যাবতীয় কার্যক্রম নিজেই সম্পন্ন করবে। যা তার পক্ষে সম্ভব নয় তা তার অভিভাবক আদায় করবে। অর্থাৎ ইহরাম বাঁধার সময় অভিভাবক নিজেরটার সঙ্গে শিশুর ইহরাম বাঁধার নিয়ত করবে।

নাবালেগ শিশুটি বুঝমান হলে তাওয়াফ ও তাওয়াফের পর দুই রাকাত নামাজ নিজে আদায় করবে। তবে শিশু যদি এতটাই অবুঝ হয় যে সে নিজে নামাজ আদায় করতে পারবে না, তবে তা মাফ হয়ে যাবে। তাওয়াফ ও সাঈর সময় অভিভাবক অবুঝ শিশুর হাত ধরে তা করাতে পারবে বা নিজে তাকে কোলে তুলে নিতে পারবে। একইভাবে রমিও করতে পারবে।

ইহরাম অবস্থায় নাবালেগ থেকে ইহরাম পরিপন্থী কোনো কাজ প্রকাশ পেলে কোনো জরিমানা ওয়াজিব হবে না। এমনকি হজের কোনো ওয়াজিব বা রুকন ছুটে গেলেও তার ওপর কিংবা তার অভিভাবকের উপর কোনো জরিমানা আসে না। তবে অভিভাবকের কর্তব্য হলো তাদেরকে যথাসম্ভব ইহরামের নিষিদ্ধ কার্যাদি থেকে বিরত রাখা।

(রদ্দুল মুহতার: ২/৪৬৬; গুনইয়াতুন নাসিক: ৮৪; শরহু মুখতাসারিত তাহাবি: ২/৪৯৭; আলমাবসুত, সারাখসি: ৪/৬৯; বাদায়েউস সানায়ে: ২/২৯৫; তাবয়িনুল হাকায়েক ২/২৪৪; তাতারখানিয়া: ৩/৬৫৪)

দৈনিক সরোবর/এসএস