ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

‘আদর্শ’কে স্টল না দেওয়ার কারণ জানাল বাংলা একাডেমি

সরোবর প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: জানুয়ারী ২২, ২০২৩, ০৫:৪৯ বিকাল  

একুশে বইমেলায় এবার প্রকাশনা সংস্থা ‘আদর্শ’কে স্টল বরাদ্দ দেয়নি আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি। বিষয়টি নিয়ে গত কয়েক দিন ধরে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। এর মধ্যে বাংলা একাডেমি আদর্শকে স্টল বরাদ্দ না দেওয়ার কারণ জানিয়েছে।

রবিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে অমর একুশে বইমেলার আয়োজক বাংলা একাডেমি জানায়, বইমেলার স্টল বরাদ্দসংক্রান্ত শর্ত মেনে চলতে অস্বীকৃতি জানানোর কারণে প্রকাশনা সংস্থা ‘আদর্শ’কে এবার মেলায় স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। শনিবার (২১ জানুয়ারি) বিকেলে বইমেলা পরিচালনা কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয় বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আবেদনকারী প্রকাশনীগুলোকে স্টল বরাদ্দ দিতে রবিবার লটারি হবে। অমর একুশে বইমেলা ২০২৩ নীতিমালা অনুযায়ী ৩১ সদস্যের অমর একুশে বইমেলা পরিচালনা কমিটি বরাদ্দ দেবে। তবে শর্ত মানতে না চাওয়ার কারণে আদর্শ প্রকাশনী স্টল বরাদ্দের লটারিতে অংশগ্রহণে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

গত মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) দুই লেখক ফেসবুকে দাবি করেন, তাদের বইয়ের কারণে আদর্শকে স্টল বরাদ্দ দিচ্ছে না বাংলা একাডেমি৷ তাদের একজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচিত ফাহাম আব্দুস সালাম৷ তিনি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বড় মেয়ে শামারুহ মির্জার স্বামী৷ আদর্শ থেকে প্রকাশিত তার বইয়ের নাম ‘বাঙালির মিডিয়োক্রিটির সন্ধানে’৷ অপর বইটি হলো ‘অপ্রতিরোধ্য উন্নয়নের অভাবনীয় কথামালা’৷ এটি লিখেছেন ফয়েজ আহমদ তৈয়্যব৷

আদর্শ প্রকাশনীর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাহাবুব রাহমান বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির নেতৃবৃন্দের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন, এই দুটির সঙ্গে আরো একটি বই নিয়ে আপত্তি আছে বাংলা একাডেমির৷ অ্যাকটিভিস্ট ও বিশ্লেষক জিয়া হাসানের লেখা ওই বইয়ের নাম ‘উন্নয়ন বিভ্রম’৷ এই তিন লেখক সামাজিক মাধ্যমে সরকার-বিরোধী হিসেবে পরিচিত৷ ফেসবুকে তারা নিয়মিত আলোচনায় থাকেন৷

আদর্শ প্রকাশনীর স্টল বরাদ্দ না পাওয়া নিয়ে কয়েক দিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে আলোচনা৷ অনেকে বাংলা একাডেমির এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করছেন৷ 

দৈনিক সরোবর/ আরএস