add

ঢাকা, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১

সংসদ ভেঙে দিলেন ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু

 সরোবর ডেস্ক

 প্রকাশিত: জুন ০৫, ২০২৪, ০৮:১০ রাত  

ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভা ভেঙে দিয়েছেন। বুধবার রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়ে লোকসভা ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর কয়েক ঘণ্টা পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্স দেওয়া এক বার্তায় ১৭তম লোকসভার বিলুপ্তি ঘোষণা করেছেন রাষ্ট্রপতি।

দ্রৌপদী মুর্মুর এক্স অ্যাকাউন্টে দেওয়া পোস্টে লেখা হয়েছে, তাৎক্ষণিকভাবে ১৭তম লোকসভা ভেঙে দেওয়ার জন্য মন্ত্রিসভার পরামর্শ গ্রহণ করেছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। রাষ্ট্রপতি সংবিধানের ৮৫ অনুচ্ছেদের ধারা (২) এর (বি) উপ-ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতা প্রয়োগের জন্য ১৭তম লোকসভা ভেঙে দেওয়ার আদেশে স্বাক্ষর করেছেন।

মঙ্গলবার ভারতের লোকসভা নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল ঘোষণার পরদিন দেশটিতে পরবর্তী সরকার গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে পরবর্তী সরকার গঠনের আগে আনুষ্ঠানিকতা হিসেবে লোকসভা ভেঙে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

এর আগে, বুধবার দুপুরের দিকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাষ্ট্রপতির কাছে তার পুরো মন্ত্রিসভার পদত্যাগপত্র জমা দেন। বুধবার দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এই পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। শরীক দলগুলো বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের সঙ্গে থেকে সরকার গঠনের প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় পদত্যাগ করেন নরেন্দ্র মোদি।

তবে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত সরকার পরিচালনা কাজ চালিয়ে যেতে নরেন্দ্র মোদির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। পদত্যাগের পর টানা তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিজেপির শীর্ষ নেতা নরেন্দ্র মোদি। আগামী শনিবার রাজধানী নয়াদিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে শপথ নিতে পারেন তিনি।

মঙ্গলবার ভারতের ৫৪৩ আসনের লোকসভার চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এই নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। দেশটিতে সরকার গঠনের জন্য ২৭২ আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রয়োজন হলেও বিজেপি এককভাবে ২৪০ আসন পেয়েছে। ফলে এককভাবে সরকার গঠন করতে পারছে না দলটি।

দৈনিক সরোবর/এসএস