add

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

ঝিনাইদহে প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: মে ২৪, ২০২৪, ০২:৩৪ দুপুর  

ঝিনাইদহে পুরুষ শূন্য বাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছে ডাকাতেরা। এ সময় ছেলের বৌকেও গুরুতর আহত করে ডাকাত দল। 

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে সদর উপজেলার কালকুলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত ফাতেমা বেগম (৪৫)  প্রবাসী আবেদ আলীর  স্ত্রী। তাঁদের ছেলে মেহেদী হাসানের স্ত্রী বিথি খাতুন (১৮) এই ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন। 

এ ঘটনায় দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলো—সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের বেতাই দুর্গাপুর গ্রামের বাদল মিয়ার ছেলে সাগর হোসেন ও ছোট ঝিনাইদহ গ্রামের ফেলু সরকারের ছেলে সুশান্ত সরকার।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন পুলিশ, এলাকাবাসী এবং গান্না ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য। তারা জানায়, প্রবাসী আবেদ আলী ১৫ বছর ধরে দুবাই থাকেন । দুই বছর আগে ছেলে মেহেদীকেও মালয়েশিয়ায় পাঠান। এরপর থেকে আবেদ আলীর স্ত্রী ও ছেলের বউ সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের খালকোলা গ্রামে বসবাস করতেন। তাদের বাড়িতে কোনো পুরুষ ছিল না। 

কিছুদিন আগে ওই বাড়িতে নির্মাণ কাজ শুরু হলে মিস্ত্রির টাকা বাকি পড়ে। এরমধ্যেই বড় অংকের টাকা পাঠানো হয় বিদেশ থেকে। এই খবর জানতে পেরে শুক্রবার ভোরে বাড়ির বারান্দার দেয়াল ভেঙে ডাকাতির উদ্দেশে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে মিস্ত্রিরা। 

ডাকাতদের উপিস্থিতি টের পাওয়ায় আবেদ আলীর স্ত্রীকে জবাই করে এবং ছেলের বউকে ধারলো অস্ত্র দিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর ছেলের বউ বিথি আহত অবস্থায় প্রতিবেশী ওবাইদুল ইসলামের বাড়ির উঠানে গিয়ে পড়ে যান। এ অবস্থা দেখে দ্রুত তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে প্রতিবেশীরা। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করে ডাক্তার। এ অবস্থায় বিথির হাতে লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করেছে পুলিশ । সেখানে দুই জনের নাম উল্লেখ থাকায় তাদের আটক করেছে পুলিশ ।

ঝিনাইদহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মীর আবিদুর রহমান জানান, ঘটনা শুনে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। ক্রাইম সিনের দল আলামত সংগ্রহ করেছে। বিথির হাতে লেখা চিরকুটটি উদ্ধার করা হয়েছে । তার সূত্র ধরে আমরা দুইজনকে আটক করেছি ।

তিনি আরো বলেন, প্রবাসী ও তার ছেলে বিদেশে থাকায় বাড়িতে কোনো পুরুষ মানুষ থাকতো না । সেই সুযোগেই ডাকাতরা এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর সাহস দেখিয়েছে। আমরা দুইজনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি। 

দৈনিক সরোবর/এসএস