টিকা নিতে অ্যাপসে নিবন্ধন করবেন যেভাবে

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ২৫, ২০২১ , ৯:১২ অপরাহ্ন

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগে জাতীয় কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন পরিকল্পনা (এনডিভিপি) তৈরি করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। দেশব্যাপি আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হবে। টিকা নিতে আগ্রহী নাগরিকদের আগে সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মের ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনে অথবা “সুরক্ষা” অ্যাপসের মাধ্যমে নিবন্ধন করতে হবে। ২৭ জানুয়ারি বিকেল থেকে শুরু হবে নিবন্ধন।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবি হলে, কোভিড- ১৯ ভ্যাকসিন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম “সুরক্ষা” ওয়েব পোর্টাল ব্যবহার নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন আইসিটি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কায়কাউস আহমেদ বলেন, এই অ্যাপসের জন্য ভ্যাক্সিনেশন প্রক্রিয়াটিতে স্বচ্ছতা থাকবে।

ভারত সরকারের উপহার এবং ক্রয়চুক্তির ভ্যাকসিনসহ মোট ৭০ লাখ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন দেশে পৌঁছেছে। সারাদেশে এই টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে। তার আগে আগামী ২৭ জানুয়ারি বিকেলে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে করোনা ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম শুরু হবে। যার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর পরদিন ২৮ জানুয়ারি থেকে কুর্মিটোলা হাসপাতালসহ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল ও মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মোট ৬৯০ জনকে ভ্যাক্সিন দেয়া হবে।

টিকা নিতে আগ্রহী সবাইকে অনলাইনে নিবন্ধন করতে হবে। সেজন্য একটি অ্যাপ তৈরি করা হয়েছে, যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ। আগামী ২৭’শে জানুয়ারি বিকেল থেকে অ্যাপের মাধ্যমে অথবা www.surokkha.gov.bd ওয়েব পোর্টালে প্রবেশ করে নিবন্ধন করা যাবে। নিবন্ধনের পর সেখান থেকেই জানা যাবে, কবে কখন টিকা নিতে হবে।

নিবন্ধন প্রক্রিয়া

জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর যাচাই করে সব ঠিক থাকলে স্ক্রিনে নিবন্ধনকারীর নাম দেখানো হবে বাংলা ও ইংরেজিতে। সেখানে একটি ঘরে একটি মোবাইল ফোন নম্বর চাওয়া হবে, যে নম্বরে তাকে পরবর্তীতে টিকাদান সংক্রান্ত তথ্য এসএমএস করা হবে।

মোবাইল নম্বর দেয়ার পর একটি ঘর পূরণ করতে হবে, যেখানে জানাতে হবে নিবন্ধনকারীর দীর্ঘমেয়াদী রোগ বা কো-মরবিডিটি আছে কি না, থাকলে কোন কোন রোগ আছে।

সেখানে আরেকটি ঘরে জানাতে হবে পেশা এবং তিনি কোভিড-১৯ সংক্রান্ত কাজে সরাসরি জড়িত কি না।

তারপর বর্তমান ঠিকানা ও কোন কেন্দ্র থেকে টিকা নিতে ইচ্ছুক তা সিলেক্ট করতে হবে।

সবশেষে ফরম সেভ করলে নিবন্ধনকারীর দেয়া মোবাইল নম্বরে পাঠানো হবে ওটিপি। সেই ওটিপি কোড দিয়ে ‘স্ট্যাটাস যাচাই’ বাটনে ক্লিক করলে নিবন্ধনের কাজ শেষ হবে।

নিবন্ধন হয়ে গেলে টিকার প্রথম ডোজের তারিখ ও কেন্দ্রের নাম এসএমএস-এর মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।

এরপর জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর, জন্ম তারিখ দিয়ে লগইন করে এসএমএস-এর মাধ্যমে পাওয়া ওটিপি কোড দিয়ে টিকা কার্ড ডাউনলোড করতে হবে।

এসএমএস-এ যে তারিখ দেয়া হবে, সেই তারিখে টিকা কার্ড ও জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে নির্ধারিত টিকাদান কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে কোভিড-১৯-এর টিকা নিতে পারবেন নিবন্ধনকারীরা।

এভাবে দুটি ডোজ শেষ হলে সুরক্ষা প্ল্যাটফর্মের ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন থেকে ভ্যাকসিনপ্রাপ্তির সনদ সংগ্রহ করা যাবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন »

আপনার মন্তব্য লিখুন

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : আরো পড়ুন