করোনায় অহেতুক অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হয়েছে

সরোবর প্রতিবেদক
প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৪, ২০২১ , ৭:২৪ অপরাহ্ন

দেশে করোনার চিকিৎসায় ব্যবহৃত অ্যান্টিবায়োটিকের মধ্যে বেশির ভাগই ব্যবহার করা হয়েছে অপ্রয়োজনে। অ্যান্টিবায়োটিকের এমন ব্যবহার না কমলে করোনার মতো আরেকটি মহামারির আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন গবেষকরা। রাজধানীর মুগদা হাসপাতালে পরিচালিত সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

বুধবার আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এএসএম আলমগীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মুগদা হাসপাতালে চলতি বছরের ১ মে থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, করোনা চিকিৎসায় হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত ওষুধের ৭০ শতাংশই ছিল অ্যান্টিবায়োটিক। আর আইসিইউতে ভর্তি রোগীদের চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারের হার ৮০ থেকে ১০০ শতাংশ। এর মধ্যে অ্যাজিথ্রোমাইসিন ও সেফ্টরিয়াক্সন ব্যবহার হয়েছে ৬৮ দশমিক ৯ শতাংশ। আর হাসপাতালে ভর্তির আগে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এগুলো ব্যবহার করেছেন ৩৩ শতাংশ রোগী।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার আইইডিসিআরে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ‘অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স’ শীর্ষক এক সেমিনারে এই গবেষণা তথ্য প্রকাশ করা হয়। অনুষ্ঠানে অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার না কমলে করোনার মতো আরেকটি মহামারির আশঙ্কার কথা জানান গবেষকরা। একইসঙ্গে এই মহামারি রুখতে অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারে রোগী ও চিকিৎসক সবাইকে আরও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

সংবাদটি শেয়ার করুন »

আপনার মন্তব্য লিখুন

স্বাস্থ্য : আরো পড়ুন